1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : editor :
  3. [email protected] : moshiur :
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৬:৫৫ অপরাহ্ন

রাজশাহী সিটিতে নৌকা চেয়ে তিন নেতার আবেদন

মহানগর রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৩
  • ২১৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে ৩ এপ্রিল। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রিও শেষ হয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত এ নির্বাচন নিয়ে কোনো আলোচনা নেই খোদ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যেই। কিন্তু কে কে দলীয় মনোনয়ন ফরম তোলছে সেদিকে নজর ছিল সবার। তবে আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা মনে করেন, ঈদের পরে নির্বাচনের মাঠ জমজমাট হয়ে উঠবে।

গত সোমবার এ নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন ফরম তোলেন বর্তমান মেয়র ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন ও তাঁর চাচা রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মাহফুজুল আলম লোটন।

এছাড়াও নানা জল্পনার কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে দলীয় মনোনয়ন ফরম তুলেছেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। এরপরও দলটির নেতাকর্মীরা তেমন সরব নন। তবে আলোচনা ছিল খায়রুজ্জামান লিটনের বিপক্ষে গিয়ে কে কে মনোনয়ন ফরম তোলছেন।

এদিকে, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি আদায়ে আন্দোলনে থাকা বিএনপি কেন্দ্রীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত কোনো নির্বাচনে অংশ নেবে না। এ কারণে সিটি নির্বাচন নিয়েও দলটির রাজশাহী নগরের নেতাকর্মীদের মধ্যে কোনো আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না। বিএনপির একাধিক নেতা বলেন, বিএনপি অংশ নিচ্ছে না বলে ভোটারদের মধ্যেও নির্বাচন নিয়ে কোনো আলোচনা নেই।

কোনো কোনো ওয়ার্ডে সম্ভাব্য অনেক কাউন্সিলর প্রার্থীর পক্ষে দেয়ালে দেয়ালে পোস্টার সাঁটানো হয়েছে। তবে বর্তমান কাউন্সিলরদের কেউ নির্বাচন নিয়ে এখনই কোনো কথা বলতে চাচ্ছেন না।

সিটি করপোরেশনের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কামরুজ্জামান কামরু বলেন, সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বুধবার রাজশাহী ফিরেছেন। এর আগে ওমরাহ হজ শেষে ৮ এপ্রিল ঢাকায় ফিরেছেন সিটি মেয়র।

তিনি বলেন, তার পক্ষে দলীয় মনোনয়ন ফরম তুলেছেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ আলী কামাল। বুধবার দলীয় মনোনয়ন ফরম জমা দেয়া হয়েছে। ঈদের পর থেকে পুরো দমে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা শুরু হবে। মেয়র পদে খায়রুজ্জামান লিটনের বিকল্প নেই বলেন টানা চার বারের এই কাউন্সিলর।

বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক এবং রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বলেন, ‘বিএনপি নাই, তাই ভোট নিয়ে আলোচনাও নাই। তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া আমরা কোনো নির্বাচনে যাবো না। এমনকি দলের কোনো কর্মীকেও নির্বাচনে অংশ নিতে দিব না। কেউ অংশ নিলে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: সিসা হোস্ট