1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : editor :
  3. [email protected] : moshiur :
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৮:৫০ পূর্বাহ্ন

মহাখালীতে বাড়ি ফেরা মানুষের চাপ, ৫শ টাকার ভাড়া ১ হাজার

মহানগর রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২৩
  • ২৭৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

কর্মব্যস্ত দিন কাটানোর পর শুরু হয়েছে ঈদুল ফিতরের ছুটি। আর এতে‌ সন্ধ্যা থেকে বাড়ি ফেরা মানুষের ভিড় জমেছে মহাখালী বাস টার্মিনালে। অনেকে পরিবার নিয়ে ছুটেছেন নিজ নিজ গন্তব্যে। তবে বরাবরের মতো এবারও বাড়তি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ উঠে এসেছে।

মঙ্গলবার (১৮ এপ্রিল) রাতে রাজধানীর মহাখালী বাস টার্মিনাল ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, যাত্রী পরিবহনের জন্য মহাখালী টার্মিনাল বাসে বাসে পরিপূর্ণ। এর বাইরেও যেসব বাস টার্মিনালে জায়গা পায়নি, তাদের স্থান হয়েছে রাস্তার দুইপাশে। এছাড়া নাবিস্কো থেকে মহাখালী রেল গেট পর্যন্ত বাসগুলোর সারি দেখা গেছে।

ঘরফেরা মানুষেরা নিজ নিজ গন্তব্যের বাস খুঁজে সেসব বাসের যাত্রী হওয়ার জন্য অধীর আগ্রহে রাস্তা এবং টার্মিনালের ভেতরে অপেক্ষা করছেন। নামকরা বাস কোম্পানিগুলো ঈদ উপলক্ষে অতিরিক্ত ভাড়া না নিলেও অন্যান্য বাসগুলোতে ঠিকই বেশি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি বাসগুলোর কর্মীরাও নিশ্চিত করেছেন, ঈদ উপলক্ষে তারা ভাড়া বেশি নিচ্ছেন।

রাজধানীর মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে জামালপুরের বকশীগঞ্জ যাওয়া যায় নিয়মিত ৪০০ থেকে ৫০০ টাকায়। কিন্তু আজ সেই বাসে ভাড়া হাঁকাচ্ছে ১০০০ টাকা। এমনই পরিস্থিতিতে গন্তব্যের অন্য বাসের জন্য অপেক্ষা করছেন শাকিল আহমেদ।

তিনি বলেন, আমরা সবসময়ই ৪০০-৫০০ টাকাতেই বকশীগঞ্জ যাই সরকার ট্রাভেলসের বাসে। কিন্তু আজ তারা এক হাজার টাকার নিচে কোনো যাত্রীকে নিচ্ছে না। এখানে দেখভালের দায়িত্বে বিভিন্ন সংস্থা থাকলেও কেউ কোনো কথা বলছে না।

ঈদ উপলক্ষ্যে ভাড়া বেশি নিচ্ছেন কিনা জানতে চাইলে শেরপুরগামী জে কে এন্টারপ্রাইজের হেলপার রুবেল হাসতে হাসতে বলেন, আগে আমরা ৫০০ টাকা করে শেরপুর যেতাম। ঈদ উপলক্ষে এখন ২০০ টাকা বাড়িয়ে ৭০০ টাকা করে যাওয়া হচ্ছে। আজ যাত্রীরা ৭০০ টাকা করে যেতে পারলেও আগামীকাল ভাড়া আরও বাড়বে।

এদিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ রুটে এনা পরিবহনের কাউন্টারের সামনে গিয়ে দেখা যায় তারা একটি ব্যানার টাঙ্গিয়ে দিয়েছে। সেখানে স্পষ্ট করে লেখা আছে, ঈদ উপলক্ষ্যে অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়া হয় না। এনা পরিবহন সম্পর্কে কোনো যাত্রী অধিক ভাড়া নিয়েছে বলেও অভিযোগ করেননি।

মহাখালী বাস টার্মিনালের ভেতরে দেখা যায়, শতাধিক মানুষ অপেক্ষা করছে বাসের জন্য। তাদেরই একজন শামীম বলেন, আমি নওগাঁ যাব। শাহ ফতেহ আলী বাসের টিকেট কিনেছি। ৬৮০ টাকা ভাড়া নিয়েছে। অন্যান্য সময়ও একই ভাড়া নেয় তারা। ঈদে তাদের অতিরিক্ত ভাড়া চাইতে শুনিনি।

এদিকে মহাখালী বাস টার্মিনালে একটি ডিজিলেন্স টিম বুথ গঠন করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। পাশেই রয়েছে র‍্যাবের কন্ট্রোল রুম। বাসস্ট্যান্ডের শুরুতে রয়েছে পুলিশের একটি কন্ট্রোল রুম।

এদিকে বাসচালকরা দাবি করছেন, আজ রাতে তেমন যাত্রী না হলেও আগামীকাল সকাল থেকেই যাত্রীর চাপ আরও বাড়বে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: সিসা হোস্ট