1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : editor :
  3. [email protected] : moshiur :
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৩০ অপরাহ্ন

ফেসবুকে পরিচয়, মেয়েটির সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে আটকা ঢাবি ছাত্র

মহানগর রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৫ জুন, ২০২৩
  • ৬৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ফেসবুকে পরিচয় থেকে মেসেঞ্জারে আলাপচারিতায় তৈরি হয়েছিল ঘনিষ্ঠতা। মেয়েটির সঙ্গে প্রথমবার দেখা করতে গত মঙ্গলবার রাতে মালিবাগে গিয়েছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী। তবে সেখানে গিয়ে কোনো তরুণীর দেখা পাননি। মেয়েটির সঙ্গে দেখা করিয়ে দেওয়ার কথা বলে আটকে ফেলা হয়েছিল তাঁকে।

পরে জাতীয় জরুরি সেবার ফোন নম্বর ৯৯৯–এ ওই তরুণ আটকে পড়ার খবর পুলিশকে জানিয়েছিলেন তাঁর হলের এক বড় ভাই। সেই ফোনের পর গোড়ানের একটি বাসা থেকে ওই শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে দীন ইসলাম (২৭) ও সাইফুল ইসলাম (২৮) নামের দুই যুবককে আটক করা হয়েছে বলে খিলগাঁও থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জয়ন্ত ঘরামি জানিয়েছেন।

পুলিশের তথ্যমতে, গ্রেপ্তার দীন ইসলামের বাড়ি শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার নওশাসনে। সাইফুলের বাড়ি খুলনার তেরখাদার হাঁড়িখালীতে।

যেভাবে উদ্ধার
৯৯৯–এর গণমাধ্যম শাখার পুলিশ পরিদর্শক আনোয়ার সাত্তার বলেন, বুধবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজয় ৭১ হল থেকে ইতিহাস বিভাগের এক ছাত্র ফোন করে বলেন, তাঁর হলের এক শিক্ষার্থী গতকাল মঙ্গলবার রাতে নগরের মালিবাগে তাঁর বান্ধবীর সঙ্গে দেখা করতে যান। বুধবার ভোররাতের দিকে তিনি জানতে পারেন, ওই শিক্ষার্থীকে আটকে রাখা হয়েছে। তাঁর ফোন নম্বর বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। কিন্তু তাঁর হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে পরিচিতজনদের কল দিয়ে তাদের থেকে টাকা চাওয়া হচ্ছিল। একপর্যায়ে ওই শিক্ষার্থী হোয়াটসঅ্যাপে কল দিয়ে জানিয়েছেন, তাঁকে খুব মারধর করা হয়েছে এবং বিবস্ত্র করে ছবি তোলা হয়েছে। এখন এক লাখ টাকা না পেলে তাঁকে ছাড়া হবে না।

তখন ৯৯৯–এ এই ফোন তথ্য নেওয়া কনস্টেবল সায়েমউদ্দীন তাৎক্ষণিকভাবে খিলগাঁও থানায় বিষয়টি জানান। খিলগাঁও থানার এসআই জয়ন্ত ঘরামি এ তথ্য পেয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেন। পরে পুলিশ দক্ষিণ গোড়ানের একটি বাসায় আটক শিক্ষার্থীর অবস্থান শনাক্ত করে। খিলগাঁও থানা-পুলিশের একটি দল সেখানে গিয়ে ওই শিক্ষার্থীকে (২৩) উদ্ধার করে। সেখান থেকে দীন ইসলাম ও সাইফুলকে আটক করা হয়।

৯৯৯–এ ফোন করে শিক্ষার্থী আটক হওয়ার খবর দেওয়া তাঁর বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই বড় ভাই বলেন, ‘ফেসবুকে মেয়েটির সঙ্গে ওর পরিচয় হয়েছিল। পরে তাদের মধ্যে মেসেঞ্জারে কথা হয়। ও মঙ্গলবার রাতে প্রথম মেয়েটির সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিল। মালিবাগে গেলে দুটি ছেলে তাঁকে মেয়েটির সঙ্গে দেখা করানোর কথা বলে গোড়ানে নিয়ে যায়।’

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: সিসা হোস্ট