1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : editor :
  3. [email protected] : moshiur :
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০২:৫১ অপরাহ্ন

পদ্মাপাড়ে ক্রিকেটের নতুন ঢেউ

মহানগর রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৩
  • ১২৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

পদ্মা পাড়ের রাজশাহীকে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (ক্রিকেট)-এ ফেরানোর উদ্যোগ নিয়েছে রয়্যাল বেঙ্গল স্পোর্টস লিমিটেড নামে রাজশাহী ভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠান। এর মধ্যেই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কাছে ফ্র্যাঞ্চাইজি পেতে আগ্রহপত্র দিয়েছে তারা। অতীতের মতো এসেই হারিয়ে যেতে চায় না প্রতিষ্ঠানটি। বিপিএল-এ তারা থাকতে চায় লম্বা সময়।

২০১২ প্রথম বিপিএল-এ রাজশাহীর প্রতিনিধিত্ব ছিল দুরন্ত রাজশাহী নামে। টানা দুই আসরে রাজশাহীর প্রতিনিধিত্ব করে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। ম্যাচ গড়পেটা, স্পট ফিক্সিংয়ের মতো ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় সেই দুটি আসরের সব ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে চুক্তি বাতিল করে বিসিবি। সেই ধাক্কায় ২০১৪ সালে হয়নি বিপিএল। ২০১৫ থেকে বিপিএল নবযাত্রা শুরু করলেও রাজশাহীর প্রতিনিধিত্ব ছিল না।

২০১৬-২০১৭ মৌসুম থেকে রাজশাহী কিংস নামে একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে আসে রেনেসাঁ গ্রুপ, এই দলের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। তিনটি সংস্করণে খেললেও মাঠে সেভাবে সুবিধে করতে পারেনি রাজশাহী কিংস। ২০১৮-২০১৯ মৌসুমে সরিয়ে নেয় তারা। পরেরবার রাজশাহী রয়্যালস নামে বঙ্গবন্ধু বিপিএলে ফ্র্যাঞ্চাইজি নেয় বেঙ্গল গ্রুপ। নতুন করে তিন আসরের চুক্তিতে বিপিএল শুরু হয় ২০২৩ সাল থেকে।

জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত সাত দলের আসরে রাজশাহীর কোনো প্রতিনিধিত্ব ছিল না। এবার নতুন করে ফ্র্যাঞ্চাইজি নিতে আগ্রহ দেখিয়েছে রয়্যাল বেঙ্গল স্পোর্টস লিমিটেড। আগামী দুই মৌসুমের জন্য ‘ফাইটার রাজশাহী’ নামে দল নিতে চায় তারা। প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক তরুণ ব্যবসায়ী ও রাজশাহীর ক্রীড়াঙ্গনে পরিচিত মুখ তৌরিদ আল মাসুদ রনি। অনেক আগে থেকেই বিপিএল-এ যুক্ত হওয়ার স্বপ্ন ছিল তার। এবার তারা চাইছে বিপিএল-এর মতো আসরে অংশ নিয়ে রাজশাহীর ক্রীড়াঙ্গনে বড় ভূমিকা রাখতে। তাদের অন্যতম উদ্দেশ্য বিপিএল-এর মাধ্যমে রাজশাহীর শহীদ কামারুজ্জামান স্টেডিয়ামকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ভেন্যুর স্বীকৃতি এনে দেওয়া।

৮ এপ্রিল বিপিএল-এর গভর্নিং বডির সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক ও বিসিবির সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজনের সঙ্গে দেখা করে আগ্রহপত্র দিয়ে এসেছেন বিসিবির রাজশাহী জেলার কাউন্সিলর রনি।

বিসিবি’র সবুজ সঙ্কেত পাওয়ার ব্যাপারে ভীষণ আশাবাদী এই ক্রীড়া সংগঠক গতকাল বলেন, ‘অতীতে দেখেছি অনেককেই রাজশাহীর নামে দল গড়তে। তবে কেউই স্থায়ীভাবে থাকেনি। আমরা দীর্ঘদিন রাজশাহীর খেলাধুলার সঙ্গে যুক্ত। তাই এবার নিজেরাই সরাসরি চেয়েছি বিপিএল-এর মতো আসরে অংশ নিতে। প্রাথমিকভাবে দু’মৌসুমের জন্য ফ্র্যাঞ্চাইজি হওয়ার আগ্রহ হলেও আমাদের লক্ষ্য স্থায়ীভাবে বিপিএল-এর সঙ্গে সংযুক্ত হওয়া।’

তিনটি আলাদা আলাদা ফ্র্যাঞ্চাইজির অধীনে ছয়বার বিপিএল-এ অংশ নিলেও কোনোবারই শিরোপা যায়নি রাজশাহীতে। সেই আক্ষেপও ঘোচাতে চান রনি, ‘ফ্র্যাঞ্চাইজি পেলে আমরা অবশ্যই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্য নিয়ে দল গড়ব। এটা আমাদের প্রধান উদ্দেশ্য। আরেকটি বড় উদ্দেশ্য হলো রাজশাহীতে ক্রিকেট স্পন্দন ফেরানো। রাজশাহী দেশের ক্রিকেটের অন্যতম সূতিকাগার। এখান থেকে অনেক তারকা ক্রিকেটার উঠে এসেছে, অথচ উদ্যোগের অভাবে রাজশাহীতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ভেন্যু হয়নি। আমরা চাই বিপিএলের ভেন্যু করার মাধ্যমে কামারুজ্জামান স্টেডিয়ামকে আন্তর্জাতিক মানের করে গড়ে তুলতে।’

বিপিএল-এর গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান শেখ সোহেলের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল আগামী আসরে ফ্র্যাঞ্চাইজির সংখ্যা বাড়বে কিনা। বিসিবির এই পরিচালক জানান, ‘বিপিএল আয়োজনের নির্দিষ্ট উইন্ডো আছে। জাতীয় দলের আন্তর্জাতিক সূচি ও অন্যান্য বিষয় মাথায় রেখে এটা ঠিক করা হয়। যদি এই সময়ের মধ্যে আট দল নিয়ে আয়োজন করা যায়, তবে আট দলই হবে। নইলে দল সাতটাই থাকবে।’

আট দলের বিষয়টি আসছে নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজির আগ্রহ দেখানোর কারণে। যদিও শেখ সোহেল জানালেন এখনো গভর্নিং বডির কাছে তাদের আবেদনটি এসে পৌঁছায়নি। ফ্র্যাঞ্চাইজি সংখ্যা না বাড়লে রনি একটা বিকল্প পথও ভেবে রেখেছেন। গতবার শেষ মুহূর্তে ঢাকা ডমিনেটরসের মালিকানা পরিবর্তন হয়। শোনা যাচ্ছে, এই ফ্র্যাঞ্চাইজি আগামী মৌসুমে থাকবে না। রয়্যাল বেঙ্গল স্পোর্টস লিমিটেড প্রয়োজনে অন্য কোনো দল কিনতেও রাজি আছে, ‘আমরা চাচ্ছি যে করেই হোক বিপিএল-এ যুক্ত হতে। রাজশাহী নামে প্রথম চাওয়া হলেও, প্রয়োজনে অন্য কোনো দল কিনতেও রাজি আছি। এ থেকেই আমাদের আগ্রহটা নিশ্চয় বোঝা যাচ্ছে।’

বিসিবির পরিকল্পনা বিপিএল-এর আগামী আসর জানুয়ারিতে করা। সিলেটের মালিকানার দল সিলেট স্ট্রাইকার্স প্রথম আসরেই পেয়েছে সাফল্য, কুমিল্লার জনপ্রতিনিধি আ হ ম মুস্তাফা কামালের মেয়ে নাফিসা কামালের হাতে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস চারবারের চ্যাম্পিয়ন। এবার রাজশাহীর মানুষই পদ্মাপাড়ের ক্রিকেটে নতুন ঢেউ তোলার স্বপ্ন দেখছেন।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: সিসা হোস্ট