1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : editor :
  3. [email protected] : moshiur :
বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৫ অপরাহ্ন

তুরস্কে অলৌকিক ভাবে ভূমিকম্পের ৭ দিন পর জীবিত উদ্ধার ছয় বছরের শিশু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ৩২৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

তুরস্ক-সিরিয়ায় ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে সাতদিনের বেশি হলো। তীব্র ঠান্ডায় খাবার-পানি ছাড়া ধ্বংসস্তূপের নিচে এতদিন বেঁচে থাকা অসম্ভবই বটে। কিন্তু সৃষ্টির অপার মহিমায় সেই অসম্ভবকেই সম্ভব করেছে ছয় বছরের এক শিশু। ভূমিকম্প আঘাত হানার ১৭৮ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার হয়েছে সে।

সোমবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর আদিয়ামানে ভূমিকম্পের ১৭৮ ঘণ্টা পর একটি ছোট্ট মেয়েকে উদ্ধার করা হয়েছে।

সিএনএন তুর্ক জানিয়েছে, ছয় বছর বয়সী মেয়েটির নাম মিরায়। উদ্ধারকারীরা তার বড় বোনের কাছেও পৌঁছানোর চেষ্টা করছেন। তুরস্কের পরিবহন মন্ত্রী আদিল কারিসমাইলোগ্লু এর আগে অবশ্য উদ্ধার হওয়া মেয়েটির বয়স চার বছর বলেছিলেন।

এদিন তুরস্কের হাতায় প্রদেশ থেকে ভূমিকম্পের ১৭৫ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে এক নারীকেও। নাইদে উমায় নামে ওই নারীকে উদ্ধারের ভিডিও প্রকাশ করেছেন ইস্তাম্বুলের মেয়র একরেম ইমামোগ্লু।

তুরস্ক-সিরিয়ার সীমান্ত অঞ্চলে গত ৬ ফেব্রুয়ারির ভয়াবহ ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা এরই মধ্যে ৩৬ হাজার ছাড়িয়েছে। ৭ দশমিক ৮ মাত্রার ওই কম্পনের আঘাতে কেবল তুরস্কেই মারা গেছেন ৩১ হাজারের বেশি।

তুর্কি কর্তৃপক্ষের হিসাবে, দেশটিতে এ পর্যন্ত ৩১ হাজার ৬৪৩ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বিধ্বস্ত হয়েছে হাজার হাজার ঘরবাড়ি। এছাড়া সিরিয়ায় মারা গেছেন অন্তত ৪ হাজার ৫৭৪ জন। এর মধ্যে দেশটির বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে প্রাণ হারিয়েছেন ৩ হাজার ১৬০ জন।

দুই দেশে এখনো বহু মানুষ নিখোঁজ রয়েছেন। কিন্তু ভূমিকম্পের পর সাতদিনের বেশি পার হয়ে যাওয়ায় ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকা পড়া লোকদের জীবিত উদ্ধারের আশা প্রায় ফুরিয়ে এসেছে। এর ফলে প্রাণহানির সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: সিসা হোস্ট