1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : editor :
  3. [email protected] : moshiur :
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১২:০৪ পূর্বাহ্ন

আবারও রাজবাড়ী-ঢাকা রুটে বাস চলাচল বন্ধ

মহানগর রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২ অক্টোবর, ২০২৩
  • ১০৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

গোল্ডেন লাইন পরিবহনের সঙ্গে দ্বন্দ্বের জেরে রাজবাড়ীর পরিবহণ মালিকরা ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন। ধর্মঘটের কারণে সোমবার (২ অক্টোবর) ভোর থেকে রাজবাড়ী-ঢাকা রুটে বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

বাস চলাচল বন্ধের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজবাড়ী পরিবহণ মালিক গ্রুপের এক সদস্য।

জানা যায়, রাজবাড়ীর কোনো বাস পদ্মা সেতু দিয়ে ঢাকা যায় না। কিন্তু গোল্ডেন লাইন পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকা যায়। এছাড়া গোল্ডেন লাইন রাজবাড়ীর পরিবহণ মালিকদের সঙ্গে আলোচনা না করে তারা নিজেদের মতন ট্রিপ পরিচালনা করছিল। এতে প্রথমে তাদের বাধা দেওয়ায় তারা ঢাকার গাবতলীতে রাজবাড়ীর কাউন্টারগুলোতে ভাঙচুর চালায়। পরে ঢাকার বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়টির সুরাহা করা হয়। এরপর সিদ্ধান্ত হয় গোল্ডেন লাইন রাজবাড়ীতে দুইটি ট্রিপ চালাবে। কিন্তু তারা এই সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে একাধিক ট্রিপ চালাচ্ছিল। তাই গত শুক্রবার রাজবাড়ী পরিবহণ মালিক গ্রুপের লোকজন বাস মালিক সমিতির সামনে থেকে গোল্ডেন লাইনের একটি বাস থেকে যাত্রী নামিয়ে ঢাকায় ফেরত পাঠায়। এতেই দ্বন্দ্ব শুরু হয়।

অবশ্য গোল্ডেন লাইন পরিবহনের সঙ্গে দ্বন্দ্ব নতুন নয়। এর আগেও গোল্ডেন লাইন পরিবহনের সঙ্গে দ্বন্দ্বের কারণে বাস চলাচল বন্ধ ছিল। তারপর রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের সঙ্গে আলোচনা ও ঢাকার বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে বসে বিষয়টি মীমাংসা হয়। কিন্তু তারপরও গোল্ডেন লাইন তাদের ইচ্ছামতো ট্রিপ চালায়। এতে নিজেদের ক্ষতির কথা জানান রাজবাড়ী পরিবহণ মালিক গ্রুপের লোকজন।

এদিকে ঢাকা-রাজবাড়ী রুটে হঠাৎ পরিবহণ বন্ধ থাকায় যাত্রীরা কাউন্টারের এসে ফেরত যাচ্ছেন। এতে অনেক যাত্রী ভোগান্তিতে পড়ছেন। তারা ঝুঁকি নিয়ে মাহেন্দ্র, ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা এবং লোকাল বাসে ঘাট পর্যন্ত ভেঙে ভেঙে যাচ্ছেন।

রিয়াজুর রহমান নামের এক যাত্রী বলেন, তিনদিন সরকারি ছুটি ছিল। আমি আরেকদিন বাড়তি ছুটি নিয়ে পরিবার নিয়ে বাড়িতে এসেছিলাম। আমার সঙ্গে স্ত্রী ও ছোট ছোট দুই সন্তান রয়েছে। আজকে ঢাকা যাওয়ার জন্য কাউন্টারে আসলে শুনি বাস বন্ধ। এখন আমাকে স্ত্রী, সন্তান নিয়ে ভেঙে ভেঙে যেতে হবে।

এ বিষয়ে রাজবাড়ী বাসমালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক লিটনের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: সিসা হোস্ট