1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : editor :
  3. [email protected] : moshiur :
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৭:৫৩ অপরাহ্ন

রাসিক নির্বাচনে অংশ নেওয়া বিএনপির ১৬ নেতাকে আজীবন বহিষ্কার

মহানগর রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৮ জুন, ২০২৩
  • ১৫২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন (রাসিক) নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী হওয়ায় ১৬ নেতাকে আজীবন বহিষ্কার করেছে বিএনপি। বুধবার (৭ জুন) রাতে বহিষ্কারের চিঠি নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রার্থীদের কাছে পাঠানো হয়েছে। বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর স্বাক্ষর করা চিঠিতে এই বহিষ্কারের কথা জানানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়েছে, দলীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ায় তাদের দল থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হলো।

গত সোমবার (৫ জুন) প্রার্থীদের কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছিল। রোববার (৪ জুন) এসব প্রার্থীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করে কেন্দ্রে চিঠি পাঠিয়েছিলেন রাজশাহী মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট এরশাদ আলী ঈশা ও সদস্যসচিব মামুন-অর-রশিদ।

বহিষ্কৃতরা হলেন- মহানগর বিএনপির রাজপাড়া থানা কমিটির সাবেক সহসভাপতি বদিউজ্জামান বদি, ১১ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক সভাপতি আবু বকর কিনু, শাহমখদুম থানা বিএনপির সাবেক সহসভাপতি মো. টুটুল, শাহমখদুম থানা বিএনপির সাবেক সহসাধারণ সম্পাদক আব্দুস সোবহান লিটন, নগর যুবদলের সাবেক সহ-সভাপতি বেলাল আহম্মেদ, নগর যুবদলের সাবেক শ্রম বিষয়ক সম্পাদক রনি হোসেন রুহুল, মহানগর যুবদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুজ্জামান টিটু, ২২ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মির্জা রিপন, বোয়ালিয়া থানা (পূর্ব) যুবদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক আলিফ আল মাহমুদ লুকেন, মহানগর বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি আনোয়ারুল আমিন আজব ও মতিহার থানা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি আশরাফুল হাসান বাচ্চু।

অন্যদিকে সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে অংশ নেওয়া বিএনপির পাঁচ নেতা মহানগর মহিলা দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মুসলিমা বেগম বেলী, মহানগর মহিলা দলের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আলতাফুন নেসা পুতুল, মহানগর মহিলা দলের ১ নম্বর যুগ্ম সম্পাদক সামসুন নাহার, মহানগর মহিলা দলের সহ-সভাপতি শাহনাজ বেগম শিখা এবং মহানগর মহিলা দলের ৪ নম্বর যুগ্ম সম্পাদক আয়েশা খাতুন মুক্তি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর ও শাহমখদুম থানা বিএনপির সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সোবহান লিটন বলেন, বহিষ্কারের চিঠির বিষয়ে আমার জানা নেই। বহিষ্কারাদেশ এখনো আমার হাতে এসে পৌঁছায়নি। আমি দলের কোনো পদেও নেই।

মহানগর মহিলা দলের ১ নম্বর যুগ্ম সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করা সামসুন নাহার বলেন, বহিষ্কারের কোনো চিঠি পাইনি। দল যা ভালো মনে করবে, তাই করবে। এই সিদ্ধান্তের বিষয়ে আমাদের কিছু বলার নেই।

রাজশাহী মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক এরশাদ আলী ঈশা বলেন, দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে রাসিক নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ায় নাম ও পদবি উল্লেখসহ কেন্দ্র থেকে চিঠি চাওয়া হয়েছিল। এর প্রেক্ষিতে ১৬ জনের নাম ও পদবি উল্লেখসহ তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিতে কেন্দ্রে চিঠি পাঠানো হয়েছিল। তাদের আজীবন বহিষ্কার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: সিসা হোস্ট