1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : editor :
  3. [email protected] : moshiur :
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০১:১১ অপরাহ্ন

যুক্তরাষ্ট্রের আকাশে ‘চীনা নজরদারি বেলুন’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ৩০২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র একটি সন্দেহভাজন চীনা নজরদারি বেলুন চিহ্নিত করেছে যা সাম্প্রতিক দিনগুলোতে সংবেদনশীল জায়গার ওপর দিয়ে উড়তে দেখা গেছে।

প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা বলছেন, তারা নিশ্চিত যে এটা চীনের উচ্চ উচ্চতার নজরদারি বেলুন’। এটি সম্প্রতি পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য মন্টানার উপরে দেখা গেছে। কিন্তু ধ্বংসাবশেষ পড়ার ঝুঁকি নিয়ে উদ্বেগ থাকায় সামরিক নেতারা এটিকে গুলি না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এ বিষয়ে চীন এখনো কোনো মন্তব্য করেনি। খবর বিবিসির।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বুধবার মন্টানার বিলিংস শহরে উপস্থিত হওয়ার আগে বস্তুটি আলাস্কার অ্যালেউটিয়ান দ্বীপপুঞ্জ এবং কানাডার মধ্য দিয়ে উড়েছিল।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন সিনিয়র প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা বলেছেন, হোয়াইট হাউস বস্তুটিকে গুলি করার নির্দেশ দিলে সরকার এফ-২২সহ যুদ্ধবিমান প্রস্তুত করেছে।

প্রতিরক্ষা সচিব লয়েড অস্টিন এবং মার্কিন জয়েন্ট চিফস অফ স্টাফের চেয়ারম্যান জেনারেল মার্ক মিলিসহ শীর্ষ সামরিক নেতারা বিষয়টি নিয়ে বুধবার বৈঠক করেছেন। অস্টিন তখন ফিলিপাইনে ভ্রমণ করছিলেন।

কিন্তু তারা বেলুনের বিরুদ্ধে “কাইনেটিক অ্যাকশন” নেওয়ার বিরুদ্ধে পরামর্শ দিয়েছে কারণ মাটিতে পড়ে থাকা ধ্বংসাবশেষ মানুষের জন্য বিপদ হতে পারে।

মন্টানা একটি কম জনবহুল রাজ্য, মালমস্ট্রম এয়ার ফোর্স বেজে দেশের মাত্র তিনটি পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র সাইলোর একটির অবস্থান। কর্মকর্তারা বলেছেন যে আপাত স্পাই ক্রাফট তথ্য সংগ্রহের জন্য সংবেদনশীল জায়গার ওপর দিয়ে উড়ছিল।

প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা অবশ্য বলেছিলেন যে মার্কিন গোয়েন্দাদের আপস করার কোনো উল্লেখযোগ্য বাড়তি হুমকি নেই। কারণ আমেরিকান কর্মকর্তারা ঠিক জানেন যে এই বেলুনটি কোথায় এবং ঠিক কোথায় এটি অতিক্রম করছে।

বেলুনটি উল্লেখযোগ্যভাবে বাণিজ্যিক বিমান সংস্থাগুলোর দ্বারা ব্যবহৃত উচ্চতার ওপরে থাকায় বেসামরিক বিমান চলাচলের জন্য কোনো হুমকি ছিল না। উল্লেখ করেন তিনি।

প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বিষয়টি ওয়াশিংটন ডিসি এবং বেইজিংয়ে তাদের দূতাবাসে চীনা কর্মকর্তাদের কাছে উত্থাপন করেছে।

বৃহস্পতিবার পেন্টাগনে ব্রিফিংয়ের সময় কর্মকর্তারা বিমানটির বর্তমান অবস্থান প্রকাশ করতে অস্বীকার জানান। তারা বস্তুর আকারসহ আরও বিশদ বিবরণ দিতে অস্বীকার করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা বলেন, ‘আকাশে বেশ উঁচুতে হলেও পাইলটরা এই জিনিসটি দেখেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।’

এ ধরনের নজরদারি বেলুনগুলি বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে ট্র্যাক করা হয়েছিল। তবে এটি এই সময়ে দীর্ঘ সময়ের জন্য হ্যাং আউট হতে দেখা যাচ্ছে। যোগ করেন ওই কর্মকর্তা।

আকাশে উঁচু একটি ফ্যাকাশে গোলাকার বস্তুর কিছু ছবি পোস্ট হওয়ায় মন্টানার সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীদের বিভ্রান্ত করেছে ৷ অন্যরা ওই এলাকায় মার্কিন সামরিক বিমান দেখেছে, দৃশ্যত বস্তুটি পর্যবেক্ষণ করছে।

বিলিংস অফিসের কর্মী চেজ ডোয়াক অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস নিউজ এজেন্সিকে বলেছেন, তিনি আকাশে বড় সাদা বৃত্ত লক্ষ্য করেছেন এবং আরও ভালো ক্যামেরা পেতে বাড়িতে গিয়েছিলেন।

‘আমি ভেবেছিলাম এটি একটি বৈধ ইউএফও হতে পারে,’ তিনি বলেছিলেন। ‘সুতরাং আমি নিশ্চিত করতে চেয়েছিলাম যে আমি এটি নথিভুক্ত করেছি এবং যতটা সম্ভব ফটো তুলেছি।’ বলেন তিনি।

সিনেট ইন্টেলিজেন্স কমিটির শীর্ষ রিপাবলিকান সিনেটর মার্কো রুবিও চীনের কথিত বেলুনকে নিন্দা করেছেন।

তিনি টুইট করেছেন, বেইজিংয়ের দ্বারা আমাদের দেশে লক্ষ্য করে গুপ্তচরবৃত্তির মাত্রা গত ৫ বছরে নাটকীয়ভাবে আরও তীব্র এবং নির্লজ্জভাবে বেড়েছে।

মন্টানার গভর্নর গ্রেগ জিয়ানফোর্টে একটি বিবৃতিতে বলেছেন, তাকে গভীর উদ্বেগজনক পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ওয়াশিংটন ডিসিতে একটি অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে, সিআইএ পরিচালক উইলিয়াম বার্নস বেলুনটির বিষয়ে কোনো উল্লেখ করেননি, তবে চীনকে বর্তমানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মুখোমুখি ‘সবচেয়ে বড় ভূ-রাজনৈতিক চ্যালেঞ্জ’ বলে অভিহিত করেছেন।

আগামী সপ্তাহে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেনের চীন সফরের আগে কথিত গুপ্তচর উত্তেজনা বাড়াতে পারে। এটি হবে বাইডেন প্রশাসনের মন্ত্রিপরিষদ সচিবের প্রথম দেশ সফর।

শীর্ষ মার্কিন কূটনীতিক বেইজিংয়ে নিরাপত্তা, তাইওয়ান এবং কোভিড-১৯ সহ বিস্তৃত বিষয়ে আলোচনা করবেন।

বৃহস্পতিবার ফাইন্যান্সিয়াল টাইমস জানিয়েছে, তিনি চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে দেখা করবেন।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: সিসা হোস্ট