1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : editor :
  3. [email protected] : moshiur :
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৫:০১ অপরাহ্ন

বন্ধ ২য় সাবমেরিন ক্যাবল, সারাদেশে ব্যাহত হচ্ছে ইন্টারনেট সেবা

তথ্যপ্রযুক্তি রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪
  • ২১৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

সিঙ্গাপুর থেকে ইন্দোনেশিয়া অভিমুখের সাবমেরিন ক্যাবল লাইন কাটা পড়ার কারণে বাংলাদেশেও এর প্রভাব পড়েছে। এর ফলে বন্ধ হয়ে গেছে কুয়াকাটায় অবস্থিত দেশের দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল স্টেশন সিমিইউ-৫।

আর এ কারণে সারাদেশেই কমবেশি নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট সেবা ব্যাহত হচ্ছে। তবে কক্সবাজার ল্যান্ডিং স্টেশন থেকে সাবমেরিন ক্যাবল সিমিউই-৪ এর ব্যান্ডউইডথ সেবা চালু রয়েছে।

শনিবার (২০ এপ্রিল) দুপুর ১টায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যান্ডউইডথ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবলস পিএলসির (বিএসসিপিএলসি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মির্জা কামাল আহমেদ।

তিনি বলেন, সমুদ্রের নিচে সিঙ্গাপুরের ফাইবার ক্যাবল যেকোনো কারণে কাটা পড়েছে। গতকাল রাত ১২টার পরে এই ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবেই বিষয়টি আমরা টের পেয়েছি। এর ফলে সিঙ্গাপুরের সঙ্গে আমাদের ইন্টারনেটের যে কানেক্টিভিটি সেটি সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে গেছে। শুধু আমরাই নয় এর ফলে শ্রীলঙ্কা, ইন্দোনেশিয়াসহ এই লাইনের সঙ্গে যে সব দেশ যুক্ত আছে সবাই এই মুহূর্তে বিচ্ছিন্ন।

তিনি আরও বলেন, তবে আমাদের কক্সবাজারের সাবমেরিন লাইনটি সম্পূর্ণ চালু রয়েছে। বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে কক্সবাজারের সাবমেরিন কেবল সিমিউই-৪ এর ব্যান্ডউইথের পরিমাণ বাড়িয়ে দিয়ে ঘাটতি পূরণ করার জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে। আসা করি শিগগিরই ইন্টারনেটের ধীরগতির সমস্যাটি কেটে যাবে।

কবে নাগাদ কুয়াকাটার সাবমেরিন ক্যাবল সিমিউই-৫ চালু হতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে মির্জা কামাল আহমেদ বলেন, এটি সিঙ্গাপুরের ক্ষতিগ্রস্ত ফাইবার লাইন ঠিক করার ওপর নির্ভর করছে। এক্ষেত্রে সাধারণত কিছুটা সময় লাগে। এ ধরনের সমস্যা সমাধানের স্পেশাল ম্যানেজমেন্ট রয়েছে ও তাদের অত্যাধুনিক শিপ রয়েছে।

তবে কক্সবাজারের সাবমেরিন ক্যাবলের ব্যান্ডউইথ আরও বাড়ানোর মাধ্যমে দেশের ইন্টারনেট ব্যবস্থাপনায় গতি ফেরানো সম্ভব হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেড (বিএসসিপিএলসি) সিমিউই-৪ এবং সিমিউই-৫ নামের দুটি আন্তর্জাতিক সাবমেরিন ক্যাবল কনসোর্টিয়ামের (কোম্পানি) সদস্য। যেটি বাংলাদেশে সাবমেরিন ক্যাবলসের অধিক ক্ষমতা ও পর্যাপ্ততা নিশ্চিত করে। বর্তমানে সিমিউই-৪ এবং সিমিউই-৫ ক্যাবল দুটির মাধ্যমে বাংলাদেশের ইন্টারনেট এবং আন্তর্জাতিক ভয়েস ট্র্যাফিক চলছে। সিমিউই-৪ এর জন্য বিএসসিসিএলের ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশন রয়েছে কক্সবাজারে। আর সিমিউই-৫ এর জন্য বিএসসিসিএলের ল্যান্ডিং স্টেশন চালু হয়েছে পটুয়াখালীর কুয়াকাটাতে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: সিসা হোস্ট