1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : editor :
  3. [email protected] : moshiur :
বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৪৯ অপরাহ্ন

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া সংসদ নির্বাচনের তারিখ সত্য নয় : ইসি

মহানগর রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৬ আগস্ট, ২০২৩
  • ৬৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণের তারিখসহ পুরো তফসিলের তথ্য। সত্য-মিথ্যা নিশ্চিত না হয়ে অনেকে শেয়ার দিচ্ছেন সেই তথ্য। অথচ ভোটগ্রহণের দায়িত্ব যে সংস্থার সেই নির্বাচন কমিশন (ইসি) বলছে, এর কোনো সত্যতা নেই। এমন তথ্য ছড়িয়ে এ বিভ্রান্তি তৈরি করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কমিশন।

শুক্রবার রাতে নির্বাচন কমিশনার অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আহসান হাবিব খান জানিয়েছেন, ফেসবুকে নির্বাচন সংক্রান্ত যে তথ্যটি ঘুরছে তা আদৌ সত্য নয়। নির্বাচন নিয়ে তাদের ঘোষণা করা রোডম্যাপ অনুযায়ী কাজ চলছে। নির্বাচনের তারিখ এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

বর্তমান একাদশ সংসদের মেয়াদ প্রায় শেষ। এখন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে কাজ করছে নির্বাচন কমিশন। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা থাকায় জাতীয় নির্বাচন হতে হবে এ বছরের নভেম্বর থেকে আগামী বছরের জানুয়ারির মধ্যে।

কমিশন এরই মধ্যে জানিয়েছে, আগামী নভেম্বরে জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হতে পারে। আর ভোট হতে পারে ডিসেম্বরের শেষ অথবা জানুয়ারির শুরুতে।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ওই তথ্যে বলা হয়েছে, আগামী ৯ নভেম্বর নির্বাচনের তফসিল, ১৯ নভেম্বর মনোনয়ন জমার শেষ দিন, ২২ নভেম্বর মনোনয়ন যাচাই-বাছাই, ২৯ নভেম্বর মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন আর ২৩ ডিসেম্বর হবে ভোট। অথচ কমিশন বলছে এর কোনো সত্যতা নেই।

ফেসবুকে যে তথ্যটি ছড়িয়েছে তা মূলত ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগের। ওই বছরের ৮ নভেম্বর তৎকালীন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন। সেবার মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ছিল ১৯শে নভেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাই হয় ২২শে নভেম্বর, প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ছিল ২৯শে নভেম্বর আর ভোট গ্রহণ হয় ২৩ ডিসেম্বর।

ইসি আহসান হাবিব খান বলেন, ‘এটা শতভাগ মিথ্যা। এই তথ্যের কোনো সত্যতা নেই। তবে এটা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এ গুজবে কেউ যাতে বিভ্রান্ত না হয় আমি সেই অনুরোধ জানাব। কোন উদ্দেশ্যে করাচ্ছে, কে বা কারা করাচ্ছে এটা নিয়ে উই আর নট বদার্ড। যথাযথ কর্তৃপক্ষ অবশ্যই তাদের খুঁজে বের করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে। আমরা নির্বাচনের যে রোডম্যাপ ঘোষণা করেছি সে অনুযায়ী কাজ চলছে। রোডম্যাপ অনুযায়ী যথাসময়ে কমিশন তফসিল ঘোষনা করবে। ডিসেম্বরের শেষে বা জানুয়ারির শুরুতে ভোট।’

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: সিসা হোস্ট