1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : editor :
  3. [email protected] : moshiur :
রবিবার, ২৮ মে ২০২৩, ০৩:২৪ অপরাহ্ন

অক্টোবারেই আংশিক চালু হচ্ছে শাহজালালের তৃতীয় টার্মিনাল

মহানগর ডেস্ক :
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ৮৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনালের নির্মাণকাজ ৬০ শতাংশ শেষ হয়েছে। চলতি বছরের অক্টোবরে টার্মিনালটির আংশিক চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী।

মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) তৃতীয় টার্মিনাল অংশের কাজ পরিদর্শন শেষে সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেন তিনি।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বলেন, তৃতীয় টার্মিনালের সফট ওপেনিং হবে অক্টোবরে। ইনট্রাক স্ট্রাকচারের কাজ সেপ্টেম্বরে সম্পূর্ণ হবে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অক্টোবরে উদ্বোধন করবেন। এটি জাতির একটি প্রত্যাশা ছিল। বিদেশ থেকে আসা পর্যটকরা যেন বিমানবন্দরে এসেই বুঝতে পারেন এটা একটা উন্নত বিমানবন্দর। বিভিন্ন দেশ চেয়ে আছে শাহজালাল বিমানবন্দরের দিকে। উন্নয়নকাজ এখন দৃশ্যমান।

তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের সীমাবদ্ধতা আছে। আমরা সেগুলো কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছি। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন শুধু কাজ হলে হবে না। মান যেন বজায় থাকে ‘সেদিকটিতে খেয়াল রাখা হচ্ছে।’ তিনি বলেন, অক্টোবরের মধ্যে টার্মিনালটি যাতে প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করতে পারেন আমরা সেই টার্গেটে আছি। আমরা এই কাজটা শেষ করতে পারব বলে আশা করছি।’ এজন্য সকলের সহযোগিতা চান প্রতিমন্ত্রী।

বিমান প্রতিমন্ত্রী, ‘আগামী অক্টোবরে বোর্ডিং ব্রিজ থেকে বিমান উড়ে যাবে। তবে সকল বিমানবন্দরের সঙ্গে সংযুক্ত হওয়ার জন্য কিছুটা সময় লাগবে। বিশ্বের সব বিমানবন্দরের সাথে সংযুক্ত হওয়ার জন্য আগামী বছরের এপ্রিল পর্যন্ত সময় লাগতে পারে।’

প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম মুফিদুর রহমান, বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোকাম্মেল হোসেনসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। সংবাদ সম্মেলনে মফিদুর রহমান বলেন, আগামী অক্টোবরের মধ্যে ৯৩ শতাংশ কাজ শেষ হবে। আশা করা যাচ্ছে, মোট ২৬টি বোর্ডিং ব্রিজের মধ্যে চারটা প্রাথমিকভাবে অক্টোবরে চালু করা যাবে।’ সংবাদ সম্মেলনের আগে ১ ও ২ নম্বর টার্মিনাল পরিদর্শন করেন প্রতিমন্ত্রী। ইমিগ্রেশন, কাস্টমস হল, চেক-ইন কাউন্টার, প্রবাসী কল্যাণ ডেস্ক ও গ্রিন চ্যানেল পরিদর্শন করেন তিনি। পরিদর্শনকালে যাত্রীসেবা ও এর মান উন্নয়নে সংশ্লিষ্টদের বিভিন্ন নির্দেশনাও দেন তিনি।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: সিসা হোস্ট