1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : editor :
  3. [email protected] : moshiur :
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৬:০৯ অপরাহ্ন

অবশেষে রাজশাহীতে স্বস্তির বৃষ্টি

মহানগর রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২৩
  • ১০৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

প্রচন্ড তাপদাহের পর অবশেষে রাজশাহীতে স্বস্তির বৃষ্টি হয়েছে। আজ সোমবার বিকেল ৫ টা ৪১ মিনিটে রাজশাহীতে বৃষ্টি শুরু হয়। এর আগে সকাল থেকে রাজশাহীর আকাশে মেঘ দেখা দেয়। দুপুরে এসে পুনরায় প্রখর রোদ ও প্রচন্ড গরম শুরু হয়। বিকেল পড়ার পর থেকে আকাশে মেঘ জমতে থাকে।

বিকেল সাড়ে ৫টা থেকে পশ্চিম আকাশে কালো মেঘের ঘনঘটা দেখা দেয়। প্রথমে হালকা বাতাস শুরু হলেও শেষ পর্যন্ত ৫ টা ৪১ মিনিটে বৃষ্টি শুরু হয়। তবে কোথাও কোথায় শিলা বৃষ্টি হয়েছে বলেও খবর পাওয়া গেছে। শিলা বৃষ্টি হলেও এর পরিমান ছিল কম। যার কারণে খুব বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। শুরু থেকেই পুরো রাজশাহী জুড়ে মুষলধারে বৃষ্টি হচ্ছে।

আবহাওয়া অফিসের সূত্র মতে, দেশের বিভিন্নস্থানে ইতোমধ্যে বৃষ্টি হয়েছে। রাজশাহীতেও গত দুদিন থেকে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভবনা ছিল। এরই ধারাবাহিকতায় রাজশাহীতে আজ বৃষ্টি শুরু হয়েছে।

তবে কালবৈশাখী ঝড়ের সম্ভবনা রয়েছে বেশি। আগামী তিনদিন রাজশাহীর আবহাওয়া এমনটা থাকবে বলেও ধারণা করছেন আবহাওয়াবিদরা। শুধু রাজশাহী নগরীতেই নয়, পুরো রাজশাহীজুড়েই আজ স্বস্তির বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টির কারণে রাজশাহীর তাপমাত্রারও বড় ধরনের পরিবর্তন এসেছে। বৃষ্টির পর রাজশাহীর তাপমাত্রা নেমে আসে প্রায় ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। তবে বৃষ্টি অব্যাহত থাকলে তাপমাত্রা আর ৪০ ডিগ্রিতে পৌঁছাবে না এমনটাও বলছে আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়া অফিসের রেকর্ড করা তাপমাত্রার হিসাব অনুযায়ী এবছরই গত ৩০ বছরের রেকর্ড ভেঙ্গেছে তাপমাত্রা। এবার সর্বোচ্চ ৪২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে রাজশাহীতে। এরআগে এই তাপমাত্রা ১৯৯৩ সালে রেকর্ড হয়েছিল।

এদিকে টানা তাপদাহের কারণে রাজশাহীর গাছের আম কোড়ালি ইতোমধ্যে প্রায় ৩০ ভাগ ঝড়ে পড়েছে। এই বৃষ্টির জন্য আপাতত গাছে যে আম রয়েছে তা রক্ষা পাবে বলে মনে করছেন কৃষকরা। এছাড়াও চৈতালি ফসলও প্রাণ ফিরে পাবে এমনটাও বলছেন কৃষকরা।

অপরদিকে, প্রচন্ড তাপদাহ থেকে রেহাই পেতে পুরো রাজশাহী জুড়ে বৃষ্টির জন্য নামাজ আদায় করা হয়েছে। ঈদের পরদিন থেকে দেশের বিভিস্থানে বৃষ্টি হলেও রাজশাহী বাদ ছিল। দেরিতে হলেও ঈদের তৃতীয় দিনে এসে স্বস্তির বৃষ্টি হয়েছে। এতে ফল ফসল থেকে শুরু করে প্রাণিকুলে স্বস্তি ফিরে এসেছে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: সিসা হোস্ট